Doctors: Siddiqia Eye Foundation & Phaco Center

Profile of Dr. Mahmudul Hasan Siddiqi

Dr. Mahmudul Hasan Siddiqi,(DOB 11th August 1974) of Bangladsh had passed MBBS from Chittagong Medical collage , Bangladesh in 2002 and Diploma in Ophthalmology in 2007 from National Institute of ophthalmology, Dhaka. He joined in Islamia Eye Hospital, Dhaka as Medical officer same year. He promoted as Founder Consultant and Incharge in Islamia Eye Hospital,Jamalpur branch in 2008,


At present he is working as Assistant Professor, Department of ophthalmology, Community Based Medical Collage Bangladesh Mymensingh from 2010 till date.
He is Director of Siddiqia Eye Foundation Bangladesh and also Visiting Consultant of Nayantory Eye Hospital Sherpur District. He is regular examinar of MBBS Final profssional examination under Dhaka University. He is life member of OSB and ACOIN. He has six more publications in local ,national and international journals. He regularly attend National level and International Ophthalmology conferences.


Dr. Siddiqi has keen interest in community Ophthalmology. He regularly arrange free and subsidized eye camps in greater Mymensingh region and had about 10000 cataract surgeries in SICS method and Phacoemulsification. .He is also performing different types of oculoplasty, and External ocular surgery like; AMG.
His dream is to develop an Eye Bank in his working place.
Email ID: siddiqia74 @yahoo.com
Contact: +8801722850136

বিশ্বমানের অত্যাধুনিক ফ্যাকো মেশিনের সাহায্যে চোখের ফ্যাকো সার্জারীসহ আমেরিকান লেন্স সংযোজন এখন ময়মনসিংহে চলছে...

সিদ্দিকিয়া চক্ষু হাসপাতাল ও ফ্যাকো সেন্টার

সব ধরণের ল্যান্সে বিশেষ ছাড়! সাশ্রয়ী খরচে আপনার দ্বারপ্রান্তে

চক্ষু বিশেষজ্ঞ ও সার্জন
ডঃ মাহ্ মুদুল হাসান সিদ্দিকী

এম বি বি এস, ডিও, কর্নিয়া ফেলো (সিঙ্গাপুর)
সহকারী অধ্যাপক, সিবিএমসিবি ময়মনসিংহ
কনসালটেন্ট, ইসলামিয়া চক্ষু হাসপাতাল, ঢাকা, জামালপুর (ভূতপূর্ব)
স্পেশাল ট্রেনিং (ইন্ডিয়া ও জাপান)

 

২৫/এ সেহড়া (ধোপাখলা মোড়), ময়মনসিংহ
০১৭৪২-২২০৩৫১, ০১৯৮৬- ৫৯৮২০০, ০১৭২২-৮৫০১৩৬
email: siddiqia74@yahoo.com

 

আমরা আছি ময়মনসিংহ শহরের চক্ষু চিকিৎসার প্রাণকেন্দ্রে ধোপাখলা মোড়

রোগী দেখার সময়ঃ
প্রাইভেট চেম্বারঃ ৫টা থেকে রাত ৮টা
জরুরী চিকিৎসাঃ যোগাযোগ সাপেক্ষে
সিরিয়ালের জন্যঃ
০১৯৮৬৫৯৮২০০, ০১৭৪২২২০৩৫১

আমাদের সেবা সমূহ...
অত্যাধুনিক কম্পিউটার, স্লিট ল্যাম্প মাইক্রোস্কোপ, বায়োমেট্রি মাশিন, ক্যারাটোমিটার, টনোমিটার, অফথালমস্কোপ এর সাহায্যে চোখের পরীক্ষা নিরীক্ষা করা হয়।

বিভাগ ভিত্তিক সেবা ও অপারেশন সমূহ

  • ফ্যাকো সার্জারী ও লেন্স সংযোজন
  • সেলাই বিহীন ছানী অপারেশন ( মান্যুয়াল ফ্যাকো )

ও লেন্স সংযোজন

  • নেত্রনালী অপারেশন
  • চোখের প্লাষ্টিক সার্জারী
  • গ্লকোমা স্ক্রিনিং ও অপারেশন
  • ডায়াবেটিক চক্ষু সেবা
  • টেরা চোখ সোজা করা
  • কন্টাক্ট লেন্স
  • কৃত্রিম চক্ষু সংযোজন
  • টেরিজিয়াম গ্রাফটিং
  • শিশু চক্ষু সেবা
  • কর্নিয়া সংযোজন সেবা
  • এমনিয়টিক মেমব্রেন সার্ভিস
  • অন্যান্য

চোখের ছানীফ্যাকো অপারেশন সম্পর্কে জানুন

অন্ধত্ব বাংলাদেশের একটি বড় জনস্বাস্হ্য সমস্যা। জাতীয় সমীক্ষা অনুযায়ী বাংলাদেশের মোট জনসংখ্যার ১.১% বা প্রায় ১৪ লক্ষ লোক অন্ধ। এই অন্ধত্তের শতকরা ৮০% ভাগ ছানী জনিত কারণে অন্ধ যা অপারেশন দ্বারা সহজেই নিরাময়যোগ্য।

ক্যাটারেক্ট বা ছানী কি?

  • ছানী চোখের উপর কোন পর্দা পড়া নয়।
  • চোখের ভিতর স্বচ্ছ লেন্স ঘোলা বা অস্বচ্ছ হয়ে যাওয়াকে ছানি পড়া বলে।
  • এতে দৃষ্টি শক্তি কমে যায়।
  • চোখের কাল তারা শাদা/ধূসর দেখা যায়।
  • আলোর চারপাশে রংধনু ভাসে।
  • অল্প দূরের জিনিস ভাল দেখা যায় না।
  • অনেক সময় ডাবল দেখা যায়।
  • অপারেসনের দেরী হলে চোখে ব্যাথা হয়। চোখের প্রেশার বেড়ে যায়। স্থায়ীভাবে চোখের নার্ভ নষ্ট হয়ে যেতে পারে।

 

ছানীর কারনঃ
জন্মগত ভাবে, বয়সজনিত কারণে, আঘাত পেলে, দীর্ঘদিন স্টেরয়েড জাতীয় ঔষধ সেবনে।
ডায়াবেটিস, চর্মরোগ, মায়োপিয়া ইত্যাদি।

করনীয়ঃ

  • ছানী ঔষধ ব্যবহার করে পরিষ্কার করা যায় না।
  • ছানী একমাত্র অপারেশনের মাধ্যমে চিকিৎসা করা হয়।
  • সঠিক সময়ে ছানী অপারেশন না করলে চোখ অন্ধ হয়ে যেতে পারে।
  • বর্তমানে অত্যাধুনিক ফ্যাকো মাশিনের সাহায্যে ছানী অপারেশনের পর চোখে কৃত্রিম ল্যান্স সংযোজন করা হয় এতে রোগী পূর্বের ন্যায় দেখতে পারে।
  • এই ল্যান্স চোখে আজীবন অপরিবর্তিত থাকে।


ফ্যাকো অপারেশন কী?
এই অপারেশনের মাধ্যমে বিশ্বের সর্বাধুনিক প্রযুক্তি সমৃদ্ধ ফ্যাকো ম্যাশিনের সাহায্যে সম্পূণ ব্যাথামুক্তভাবে সামান্য ২.৫ মিমি ছিদ্র দিয়ে আলট্রাসাউন্ড প্রক্রিয়ায় চোখের ভিতরের ছানী ইমালসিফিকেশন করে (গলিয়ে) বের করে কৃত্রিম ল্যান্স সংযোজন করা হয়।

সুবিধা সমূহঃ

  • এই অপারেশন সম্পূণ ব্যাথামুক্ত ও রক্তপাতহীন।
  • ইনজেকশন না দিয়ে শুধুমাত্র ড্রপ দিয়েও সম্ভব।
  • এই অপারেশন বেন্ডেজ প্রয়োজন হয় না।
  • অপারেশনের মাত্র ১ ঘণ্টা পর বাড়ি যাওয়া যায়।
  • হাসপাতালে ভর্তির প্রয়োজন নাই।
  • এস্টিগমেটিজম হয় না বললেই চলে।
  • অপারেশনের সময় মাত্র ১০ থাকে ৩০ মিনিট।

 

সাধারণ ম্যানুয়াল ছানী অপারেশনের সাথে ফ্যাকো অপারেশনের পার্থক্য


ফ্যাকো অপারেশন

সাধারণ ম্যানুয়াল অপারেশন

মাত্র ২.৫ মিমি থেকে ৩ মিমি পর্যন্ত ছোট ছিদ্র দিয়ে কলমের মাথার মত যন্ত্রের সাহায্যে এই অপারেশন সম্পন্ন করা হয়। এতে চোখে সবচে কম পরিমান টের পায় এবং চোখের আকার পূর্বের মত থাকে। এস্টিগমেটিজমের পরিমান খুবই কম হয়। ছোট ছিদ্র অপারেশনের পরপরই মিশে জায়।নিখুদ ও সুন্দর দৃষ্ট ফিরত আসে।

এতে অনেক বেশি (১০ মিলি মিটার পর্যন্ত) কাটতে হয়।
পুরো ছানী টেনে বের করতে হয়।এতে এস্টিগমেটিজম বেশি হয়।ফলে সুন্দর ও নিখুদ দৃষ্টি আসে না। কর্নিয়াতে আঘাতের হার অনেক বেশি। নিখুদ পলিশিং সম্ভব নয়।


চোখের বিভিন্ন ধরণের আর্টিফিশিয়াল লেন্স(IOL) সম্পর্কে ধারণা দেওয়া হল…
Monofocal Lens (Hard Lens)
সাধারণ ম্যানুয়াল অপারেশনে ব্যবহৃত হয়।
ভাল দৃষ্টি আনা সম্ভব।
এতে কাছে পড়ার জন্য চশমা প্রয়োজন হয়।
পরবর্তীতে ছানী পড়ার সম্ভাবনা থাকে।

Advanced Monofocal/Foldable Lens(Soft Lens)
নিখুদ ও আরও সুন্দর দৃষ্ট ফিরত আসে।
ফ্যাকো অপারেশনে সর্বাধিক জনপ্রিয়।

Multifocal Lens
এতে দূরে ও কাছে ভাল দেখা যায়।
চশমা প্রয়োজন জয় না।

Toric Lens
এতে দূরদৃষ্টি তীক্ষ্ণ হয়।
এস্টিগমেটিজম কারেকশান সম্ভব।

কেন আমাদের সেবা গ্রহন করবেনঃ

  • আমাদের আছে দক্ষ চক্ষু বিশেষজ্ঞ ও সার্জন।
  • অত্যাধুনিক চক্ষু সংশ্লিষ্ট মানসম্পন্ন মেশিনারীজ।
  • শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত অপারেশন থিয়েটার।
  • নিয়মিত দেশী বিদেশী আন্তর্জাতিক চক্ষু কনফারেন্সে যোগদানের মাধ্যমে সর্বশেষ চিকিৎসা পদ্ধতি সম্পর্কে অবিহিত করা।
  • আমাদের আছে দেশের শীর্ষস্হানীয় হাসপাতাল সমূহে পর্যাপ্ত চক্ষু অপারেশনের অভিজ্ঞতা।
  • আন্তরিক ও সাশ্রয়ী সেবার মনোভাব।